Homeসব খবরক্রিকেটশান্তর টসের সিদ্ধান্তের ভুল জানালেন সাকিব!

শান্তর টসের সিদ্ধান্তের ভুল জানালেন সাকিব!

সুপার এইটের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে ভারতের দেয়া পাহাড়সম টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে নিজেদের সেভাবে মেলে ধরতে পারেনি বাংলাদেশ। তাই ফলাফল যা হওয়ার তাই হয়েছে, ৫০ রানের বড় ব্যবধানে হেরে মাঠ ছাড়তে হয়েছে তাদের। অথচ এই ম্যাচে জয়লাভ করলে সেমির স্বপ্ন এখনো টিকে থাকত। তবে এখনো যে সেমিতে খেলতে পারবে না বাংলাদেশ এমনটা বলা যাচ্ছে না। সেজন্য অবশ্য অসম পথই পাড়ি দিতে হবে টিম টাইগার্সকে।

এদিকে গুরুত্বপূর্ণ এমন ম্যাচে টস জিতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন বাংলাদেশ অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত। নিজের সিদ্ধান্তের বিষয়ে নাজমুল শান্ত বলেন, আমাদের পরিকল্পনা হচ্ছে প্রতিপক্ষকে অল্প রানে আটকে ফেলা। আমরা জানি কন্ডিশন কেমন। এটা ভালো উইকেট। এখানে বাতাস একটা ফ্যাক্টর। আমরা মনে করি, ১৫০-১৬০ রান এখানে ভালো স্কোর।

ভারতের অধিনায়ক রোহিত শর্মা টসের সময় জানান, তিনি এই ভালো উইকেটে টস জিতলে ব্যাটিংই নিতেন। একজন বোলার কম নিয়ে ভারতের বিপক্ষে টস জিতে বাংলাদেশের ফিল্ডিং নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে তাই প্রশ্ন উঠে।

তাই তো ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে সাকিব আল হাসানের কাছে এ বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, এটা অধিনায়ক ও কোচের সিদ্ধান্ত। উইকেট কিছুটা মন্থর ছিল। ম্যাচ শুরুতে কিছুটা শুকনো ছিল। অধিনায়ক হয়তো ভেবেছিল স্পিনারদের সহায়তা করতে পারে।

এরপরই সাকিব বলেন, ব্যক্তিগতভাবে যদি জিজ্ঞেস করেন, ক্যারিবিয় অঞ্চলে চলমান এই টুর্নামেন্টে এক-দুইটি ম্যাচ বাদ দিয়ে ব্যাটিং আগে করাটাই ট্রেন্ড এখানে, আগে ব্যাটিং করা দলগুলো সফলও হচ্ছে। পরিসংখ্যান দেখলে আপনার আগে ব্যাটিং করাই ঠিক ছিল। তবে অধিনায়ক-কোচ হয়তো ভেবেছে অন্যভাবে। আমরা যদি একটা মোটামুটি স্কোরেও তাদের বেঁধে ফেলতাম, আমাদের ভাবনায় একটা স্কোর ছিল। সে কারণেই আগে ফিল্ডিং করা।

উইকেট থেকে স্পিনাররা খুব একটা সহযোগিতা পায়নি সেটি স্বীকার করে সাকিব বলেন, এটা খুব ভালো ব্যাটিং উইকেট। ইনিংসের মাঝ ওভারে ক্যারিবীয় অঞ্চলে পাওয়ার প্লেতে স্পিনারদের বোলিং করা কিছুটা সহজ। নতুন বল সবাই কাজে লাগাতে চায়। কারণ, বল পরে নরম হয়ে গেলে রান করা কিছুটা কঠিন হয়ে যায়।

এদিকে শুধু সাকিবই নন টস জিতে নাজমুল শান্তর ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্তে অবাক হয়েছেন সাবেক ইংলিশ অধিনায়ক মাইকেল ভনও। তাই তো নিজের এক্স হ্যান্ডলে তিনি লিখেন, বাংলাদেশ টস জিতেছে এবং একটা দিনের ম্যাচে আগে বল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। দুজন স্পিনারকে দিয়ে শুরু করেছে এমন ব্যাটারদের বিপক্ষে, যারা স্পিনের বিপক্ষে অবিশ্বাস্য ব্যাটিং করে থাকে। তারা ফিজকেও আনেনি, অথচ ওদের দুই ব্যাটারই (রোহিত-কোহলি) বাঁহাতি পেসারের বিপক্ষে ভুগছিল। কী অদ্ভুত ব্যাপার।

Advertisement