Saturday, October 1, 2022
Homeসব খবরজেলার খবররাতে বিপদে তরুণী, উপকারের কথা বলে বাড়িতে নিয়ে ধর্ষণ

রাতে বিপদে তরুণী, উপকারের কথা বলে বাড়িতে নিয়ে ধর্ষণ

সাতক্ষীরা কালিগঞ্জ উপজেলায় রতনপুর ইউনিয়নের সুবর্ণগাছী গ্রামের এক তরুণী (১৯) ধর্ষণের অভিযোগে এক যুবকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শনিবার (২২ মে) সকালে উপজেলার নাজিমগঞ্জ এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত আল-আমিন বাপ্পি (২৫) উপজেলার মথুরেশপুর ইউনিয়নের গণপতি গ্রামের শেখ মোস্তাফিজুর রহমানের ছেলে।

থানা পুলিশ ও ভুক্তভোগী তরুণী জানায়, গত ১৯ মে সকালে তরুণী সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এক অসুস্থ আত্মীয়কে দেখতে যান। পরে বিকেলে হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরতে সন্ধ্যা হয়ে যায়। এ সময় কালিগঞ্জ টার্মিনালে নেমে তার পূর্ব পরিচিত ভাই শামীম হোসেনকে মোবাইলে কল দেয়। শামীমের ফোন বন্ধ থাকায় তিনি উপজেলার মথুরেশপুর ইউনিয়নের বসন্তপুর গ্রামে শামীমের বাড়ি যায়।

এরপরে সেখানে কাউকে না পেয়ে উপজেলা সদরের দিকে ফিরে আসছিলেন। পথে নাজিমগঞ্জ বিজিবি ক্যাম্প এলাকায় পৌঁছলে স্থানীয় ব্যক্তিরা গতি রোধ করে তরুণীকে বিভিন্ন আপত্তিকর প্রশ্ন করতে থাকে। এ সময়ে তরুণী ঘটনার বিবরণ দিলে উপস্থিত লোকজনের মধ্যে থেকে অভিযুক্ত বাপ্পি তাকে মোটরসাইকেল যোগে বাড়িতে পৌঁছে দিবে বলে জানায়। রাত সাড়ে ৮টার দিকে অভিযুক্ত বাপ্পি ওই তরুণী বাড়িতে পৌঁছে না দিয়ে বাপ্পির নিজ বাড়িতে নিয়ে যায়। সেখানে তাকে ধর্ষণ করেন। এ সময় তরুণীর চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে বাপ্পি পালিয়ে যায়।

তারপর স্থানীয়দের সহায়তায় ভুক্তভোগী তরুণী কালিগঞ্জ থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। মামলার প্রেক্ষিতে শনিবার (২২ মে) সকালে পুলিশ অভিযান চালিয়ে উপজেলার নাজিমগঞ্জ এলাকা থেকে বাপ্পিকে গ্রেপ্তার করে।এ বিষয়ে কালিগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ গোলাম মোস্তফা বলেন, ধর্ষণ মামলায় আসামি বাপ্পিকে আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।-আরটিভি অনলাইন।

Advertisement