Saturday, October 1, 2022
Homeসব খবরআন্তর্জাতিকবিশ্ববাজারে ৭ মাসে সর্বনিম্ন তেলের দাম

বিশ্ববাজারে ৭ মাসে সর্বনিম্ন তেলের দাম

আন্তর্জাতিক বাজারে আরও কমলো অপরিশোধিত জ্বালানি তেলের দাম। এক ডলারের বেশি দাম কমে বুধবার গত সাত মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন পর্যায়ে পৌঁছেছে। চীনে করো’নাভাই’রাসের কারণে লকডাউন, বিশ্বব্যাপী কেন্দ্রীয় ব্যাংকগুলোতে সুদের হার বৃদ্ধি এবং ইউরোপে অর্থনৈতিক মন্দার শঙ্কায় আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দাম কমেছে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকেরা।

সবশেষ বুধবার বাংলাদেশ সময় সকাল ১০টা ২০ মিনিটে অপরিশোধিত তেলের আন্তর্জাতিক বেঞ্চমার্ক ব্রেন্টের দাম ব্যারেল প্রতি ১ ডলার ১১ সেন্ট বা ১ দশমিক দুই শতাংশ কমে ব্রেন্ট ক্রুডের দাম দাঁড়িয়েছে ৯১ ডলার ৭২ সেন্টে। লেনদেনের এক পর্যায়ে তেলের দাম নেমে গিয়েছিল ৯১ দশমিক ৩৫ ডলারে। যা ১৮ ফেব্রুয়ারির পর থেকে সর্বনিম্ন।

এছাড়া যুক্তরাষ্ট্রে দাম ১ ডলার ২২ সেন্ট বা ১ দশমিক ৪ শতাংশ কমে ব্যারেল প্রতি ৮৫ দশমিক ৬৬ ডলারে দাঁড়িয়েছে। যা গত ২৬ জানুয়ারির পর থেকে সর্বনিম্ন। এর আগে গত সোমবার জ্বালানি তেলের দাম বাড়ে। কারণ, ওই দিন এক বৈঠকে আগামী অক্টোবরে দৈনিক ১ লাখ ব্যারেল তেল উত্তোলন কমাতে সম্মত হয় উৎপাদনকারী দেশগুলো এবং তাদের মিত্র জোট ওপেক প্লাস।

এদিকে বিনিয়োগকারীরা মুদ্রাস্ফীতি নিয়ন্ত্রণে সুদের হার আরও বৃদ্ধির দিকেও নজর রাখছেন। ইউরোপীয় সেন্ট্রাল ব্যাংক বৃহস্পতিবার বৈঠকে বসলে এটি দ্রুত হারে বাড়বে বলে মনে করা হচ্ছে। এছাড়া ইসিবি’র বৈঠকের পর এ বিষয়ে আগামী ২১ সেপ্টেম্বর মার্কিন ফেডারেল রিজার্ভেরও একটি বৈঠক হবে।

গত ফেব্রুয়ারির শেষ দিকে রাশিয়া-ইউক্রেন যু’দ্ধ বাঁধার পর থেকেই মন্দাভাব শুরু হয় জ্বালানি তেলের বাজারে। জ্বালানি তেলের আন্তর্জাতিক বাজার পর্যবেক্ষণকারী বিভিন্ন সংস্থার তথ্য অনুযায়ী, গত আগস্ট মাসের মাঝামাঝি পর্যন্ত শতাংশ হিসেবে গত ৬ মাসে বিশ্ব বাজারে ব্রেন্ট ক্রুড তেলের দাম কমেছে ১৩ দশমিক ৭ শতাংশ ও ডব্লিউটিআইয়ের দাম কমেছে ৯ দশমিক ৭ শতাংশ।

Advertisement