Thursday, December 8, 2022
Homeসব খবরবিনোদনটাইগারদের রুদ্ধশ্বাস জয়, শেষমুহূর্তে শ্বাস বন্ধ বুবলীর!

টাইগারদের রুদ্ধশ্বাস জয়, শেষমুহূর্তে শ্বাস বন্ধ বুবলীর!

আজ জিম্বাবুয়েকে ১৫১ রানের টার্গেট ছুঁড়ে দেয় টাইগাররা। জবাবে ব্যাটিংয়ে নেমে ১৪৭ রানে শেষ হয় জিম্বাবুয়ের ইনিংস। ফলে ৩ রানের জয় নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের দুই নম্বরে চলে এসেছে সাকিবের দল। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে শ্বাসরুদ্ধকর জয় দিয়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালের আশা বাঁচিয়ে রাখলো বাংলাদেশ।

চলতি আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে জিম্বাবুয়েকে ৩ রানে হারিয়েছে বাংলাদেশ। তবে ম্যাচটা পেন্ডুলামের মতো দু’দিকেই দুলছিলো। এমন দৃশ্যপটে দুই দলের সমর্থকদের দম বন্ধ হওয়ার উপক্রম হয়। তবে উত্তেজনা বাড়ালেও মোসাদ্দেক নিরাশ করেননি। শেষ হাসি হেসেছে বাংলাদেশ। রুদ্ধশ্বাস এই জয়ের মধ্য দিয়ে বিশ্বকাপে সেমিফাইনালে খেলার স্বপ্ন টিকে রইল টাইগারদের।

অন্য সব সমর্থকের মতো বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ের ম্যাচটি দেখে শেষমুহূর্তে শ্বাস বন্ধ হয়ে যাচ্ছিলো চিত্রনায়িকা শবনম বুবলীর। সোশ্যাল মিডিয়ায় টাইগারদের নিয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে এমনটাই জানিয়েছেন নায়িকা। বুবলী লিখেছেন, শেষ মুহূর্তে শ্বাস বন্ধ! কিন্তু অবশেষে আমরা জিতেছি। তোমাদের নিয়ে গর্বিত টাইগাররা।

রুদ্ধশ্বাস জয়ের এই ম্যাচে টস জিতে বাংলাদেশ প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমে ওপেনার নাজমুল হোসেন শান্তর ৫৫ বলে ৭১, অধিনায়ক সাকিব ২০ বলে ২৩ ও আফিফ ১৯ বলে ২৯ রান করলে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেটে ১৫০ রানের লড়াকু পুঁজি পায় টাইগাররা।

বোলিংয়ে জিম্বাবুয়ের পক্ষে ব্লেসিং মুজারাবানি ও রিচার্ড নাগারভা দুটি করে উইকেট পান। এছাড়া সিকান্দার রাজা ও শন উইলিয়ামস ১টি করে উইকেট পান। জবাবে রান তাড়া করতে নেমে টাইগার পেসার তাসকিন আহমেদ ও মুস্তাফিজুর রহমানের বোলিং তোপে ৩৫ রানেই ৪ উইকেট হারিয়ে ফেলে জিম্বাবুয়ে। এরপর দলকে কিছুটা বিপর্যয়মুক্ত করেন শন উইলিয়ামস ও রেজিস চাকাভা। কিন্তু ব্যক্তিগত ১৫ রান করে তাসকিনের তৃতীয় শিকার হয়ে সাজঘরে ফেরেন চাকাভা।

এরপর রায়ান বার্লকে নিয়ে একাই লড়াই করছিলেন উইলিয়ামস। কিন্তু ম্যাচের আট বল বাকি থাকতেই রান আউটের কবলে পড়েন উইলিয়ামস। জয়ের জন্য ১৯ রান দূরে থাকতেই ৪২ বলে ৬৪ রানে সাকিবের কাছে রান আউটের কবলে পড়েন তিনি। শেষ ওভারে জিম্বাবুয়ের জয়ের জন্য দরকার ছিল ১৬ রান। কাপ্তান সাকিব বল তুলে দেন মোসাদ্দেকের হাতে। আস্থার প্রতিদানও দিতে ভুল করেননি মোসাদ্দেক। ফলে রোমাঞ্চ সঙ্গী করে ৩ রানের নাটকীয় জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে টাইগাররা।

এদিকে, আজ টাইগার পেসার তার পুরস্কার গ্রহণ করতে গেলে সঞ্চালক বলেন, ‘শেষ বলে এমন নো বলের ঘটনা এবারই প্রথম দেখতে হলো আমাদের।’ জবাবে তাসকিন বলেন, ‘হ্যাঁ! শেষ বলে এরকম নো বল বা ম্যাচ পরিস্থিতি বোধ হয় এবারই জীবনের প্রথম দেখলাম। ওই সময়ে আমরা খুবই চিন্তিত ছিলাম। তবে আলহামদুলিল্লাহ আমরা ম্যাচটি জিততে পেরেছি।’

তাসকিন আরও বলেন, ‘আমি সবসময়ই আমার উন্নতির দিকে বেশি নজর দিচ্ছি এবং আমার সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করছি। আলহামদুলিল্লাহ সেটা করতে পেরে আমি খুশি। তাসকিন আরও বলেন, আমাদের বর্তমানে বেশ ভালো মানের কিছু পেস বোলার রয়েছে। সম্পূর্ন কোচিং প্যানেল আমাদের সমর্থন জোগাচ্ছে।’

Advertisement