Sunday, September 25, 2022
Homeসব খবরজেলার খবরজয়পুরহাটে ৩৩ হাজার মেট্রিক টন আখ মাড়াইয়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ

জয়পুরহাটে ৩৩ হাজার মেট্রিক টন আখ মাড়াইয়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ

দেশের বৃহত্তম চিনি উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান জয়পুরহাট চিনিকলে ২০২২-২০২৩ মৌসুমে ৩৩ হাজার মেট্রিক টন আখ মাড়াইয়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। আগামী ডিসেম্বর মাসে আখ মাড়াই কার্যক্রম শুরু হবে। চিনিকল সূত্র বাসস’কে জানায়, ২০২২-২০২৩ আখ মাড়াই মৌসুমের জন্য আখ রোপণের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৬ হাজার ৫০০ একর জমি। অর্জিত হয়েছে ২ হাজার ২৪ একর। এতে আখ উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৩৩ হাজার মেট্রিক টন আখ।

চিনি আহরনের শতকরা হার ধরা হয়েছে ৬ দশমিক ৪ ভাগ । এতে চিনি উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ২ হাজার ১১৮ মেট্রিক টন চিনি। অন্যান্য ফসলের দামের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে আখের মূল্যও বাড়িয়েছে সরকার। বর্তমানে মিলগেটে আখের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে পার মেট্রিক টন ৪ হাজার ৪৫০ টাকা এবং বাইরের ক্রয় কেন্দ্রের জন্য ৪ হাজার ৪৪০ টাকা। আখের মূল্য বাড়ানোর ফলে আখ চাষে কৃষকরা আগ্রহী হয়ে উঠছেন বলে জানান, জয়পুরহাট চিনিকলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আখলাছুর রহমান।

চিনিকল সূত্র জানায়, আখ চাষে কৃষকদের উদ্বুদ্ধ করতে সরকারি সহায়তা হিসেবে এক কোটি ৯০ লাখ টাকা ঋণ সুবিধা প্রদান করা হয়েছে। ঋণ প্রাপ্ত আখ চাষির সংখ্যা হচ্ছে ২ হাজার ৭শ জন। এর মধ্যে রয়েছে সার ও উন্নত মানের আখ বীজসহ অন্যান্য উপকরণ। আখ মিলে সরবরাহ করার পর ঋণের টাকা পরিশোধ করতে হয় কৃষকদের।

ফলে ঋণ পরিশোধ করার কোন বাড়তি চাপ থাকে না। ২০২৩-২০২৪ মাড়াই মৌসুমের জন্যও ৬ হাজার ৫০০ একর জমিতে আখ রোপণের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে বলেও জানান, ব্যবস্থাপনা পরিচালক আখলাছুর রহমান। গত ২০২১-২০২২ মাড়াই মৌসুমে ২১ হাজার ৪৪৯ মেট্রিক টন আখ মাড়াই করে এক হাজার ১৬২ মেট্রিক টন চিনি উৎপাদন করা হয়েছিল বলেও জানান তিনি।

Advertisement