Homeফুটবলজিতলে নকআউট, হারলেই বিদায় আর ড্র করলে সমীকরণ মেলাতে...

জিতলে নকআউট, হারলেই বিদায় আর ড্র করলে সমীকরণ মেলাতে হবে আর্জেন্টিনাকে

আর্জেন্টিনাকে কাবু করতে হলে লিওনেল মেসিকে থামাও, প্রতিপক্ষ দল এই গেম প্ল্যান নিয়েই তাদের মুখোমুখি হয়। কিন্তু তারপরও সাতবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী জাদু দিয়ে প্রতিপক্ষ খেলোয়াড়দের বশ করেন। কাতার বিশ্বকাপে গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে আর্জেন্টিনার বিপক্ষে মাঠে নামার আগে পোল্যান্ড কোচ সেসলো মিচনিউইজের কাছেও প্রশ্ন গেলো, মেসিকে থামাতে কী পরিকল্পনা করছেন?

পোলিশ কোচের কাছে এই প্রশ্নের কোনও উত্তর নেই। কারণ সারা বিশ্ব ৩৫ বছর বয়সী ফরোয়ার্ডকে থামানোর মন্ত্র খুঁজে বেড়াচ্ছে। ক্লাব ও আন্তর্জাতিক ফুটবলে প্রায় আটশ গোল করা মেসিকে স্কিং গ্রেট আলবার্তো তোম্বার সঙ্গে তুলনা করে মিচনিউইজ বললেন, ‘পিচে মেসি অনেকটা ঢালে আলবার্তো তোম্বার মতো। সে সবাইকে কেমন করে যেন এড়িয়ে যায়, যেমন তোম্বা সব বাধা পেরিয়ে যান। সুতরাং মেসির চারপাশে আমাদের খেলোয়াড় রাখতে হবে কারণ সে যদি তাদের মোকাবিলা করে তাহলে সহজেই গোল করবে।’

পোল্যান্ডের কোচ মনে করেন না, মেসিকে থামানোর চূড়ান্ত কৌশল কেউ খুঁজে বের করতে পারবে। মিচনিউইজ যোগ করেন, ‘একজন খেলোয়াড় মেসিকে থামাতে পারবে না। তার চারপাশে আমাদের অবশ্যই খেলোয়াড় রাখতে হবে। পুরো বিশ্ব বছরের পর বছর চিন্তা করছে মেসিকে কীভাবে থামানো যায় এবং তারপরও সে গোলের পর গোল আর অ্যাসিস্ট করে যাচ্ছে। আমি মনে করি না আমরা কখনও এই প্রশ্নের চূড়ান্ত উত্তর বের করতে পারবো।’

এই ম্যাচ মেসি বনাম রবার্ট লেভানডোভস্কির, এমনটা মনে করছেন অনেকে। তাদের উদ্দেশ্যে মিচনিউইজ বলেন, ‘এটা শুধু লেভানডোভস্কি ও মেসির মধ্যেকার ম্যাচ নয়, এটা তো টেনিস না। রবার্টের তার সতীর্থের প্রয়োজন, মেসির বেলাতেও একই ব্যাপার। আমরা এই দারুণ স্ট্রাইকারদের ওপর নির্ভর করি কিন্তু তারা একাই ম্যাচ জেতাতে পারে না।’

Ads by Eonads

Advertisement