Saturday, September 24, 2022
Homeসব খবরজাতীয়করোনা সংক্রমণের উচ্চ ঝুঁকিতে ৩৫ জেলা

করোনা সংক্রমণের উচ্চ ঝুঁকিতে ৩৫ জেলা

শুধু সীমান্তবর্তী ৭ জেলা নয়, করোনার উচ্চ সংক্রমণ ছড়িয়েছে দেশের ৩৫ জেলায়। সবচেয়ে বেশি শনাক্তের হার চাঁপাইনবাবগঞ্জ ও মোংলায় ৭১ ভাগ। সীমান্ত নেই, এমন ১৭ জেলাতেও ছড়িয়েছে করোনা। বিস্তার ঠেকাতে আন্তঃজেলা যোগাযোগ বন্ধ চায় আইইডিসিআর।

এদিকে যশোরে ৮ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের ভারতীয় ধরন শনাক্ত হয়েছে। আক্রান্তরা কেউ ভারতে যাননি। সোমবার রাতে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অণুজীববিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান ও জিনোম সেন্টারের সহযোগী পরিচালক ইকবাল কবীর জাহিদ এই তথ্য জানান।

শনাক্ত ৮ জনের মধ্যে ৭ জন পুরুষ ও ১ জন নারী। যাদের সবার বয়স ৫৬ বছরের কম। এনিয়ে যশোরে ১৫ জনের শরীরে ভারতীয় ধরন শনাক্ত হয়েছে। তাদের মধ্যে ৭ জন ভারতে গেছেন। বাকি ৮ জন ভারতে যাননি। যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এ পর্যন্ত ভারতফেরত ৫৫০ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১২ জনের শরীরে করোনা পজিটিভ পায়।

দেশে দ্রুত বদলে যাচ্ছে করোনা পরিস্থিতি। স্বস্তির জায়গা দখলে নিচ্ছে নতুন আতঙ্ক। সারা দেশেই বাড়ছে শনাক্তের হার। করোনা সংক্রমণ ও মৃত্যু দুটোই ঢাকায় বেশি। জেলা-উপজেলা পর্যায়ে সংক্রমণ কম থাকলেও এবার হচ্ছে তার উল্টো। সীমান্ত ও মফস্বল এলাকা দিয়ে শুরু হয়ে তা ছড়িয়ে পড়ছে সারা দেশেই।

গত ১০ দিন ধরেই রোগী বাড়ছে চাঁপাইনবাবগঞ্জে। শনাক্তের হার ৭১। একই হার মোংলাতেও। এছাড়া নওগাঁয় ৬৬, নাটোরে ৪১, সাতক্ষীরায় ৪০ ও নোয়াখালীতে ২৯। দ্রুত রোগী বাড়ছে খুলনা ও দিনাজপুরে। সম্প্রতি এসব জেলায় বেড়েছে শনাক্তের হার।

জনস্বাস্থ্যবিদ ডা. নিজাম উদ্দীন আহমেদ জানান, শনাক্তের হার দশের বেশি হলে উচ্চঝুঁকিপূর্ণ ধরা হয়। বর্তমানে ৩৫ জেলায় শনাক্তের হার দশের বেশি। এরমধ্যে সীমান্ত নেই এমন জেলা ১৭টি।

করোনার বিস্তার রোধে এসব এলাকায় রেস্তোঁরায় বসে খাওয়া, জনসমাবেশ, বিনোদনকেন্দ্র ও সামাজিক অনুষ্ঠান সম্পূর্ন বন্ধ চায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের রোগতাত্ত্বিক ও জনস্বাস্থ্য বিষয়ক কমিটি। দেশে এরই মধ্যে ২৩ জনের শরীরে করোনার ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত হয়েছে। ছড়িয়ে পড়েছে সমাজেও।

Advertisement