Thursday, December 8, 2022
Homeসব খবরবিনোদনএবার সন্তানের আশায় চার বিয়ে, সুখে নেই ইমতিয়াজ চৌধুরী

এবার সন্তানের আশায় চার বিয়ে, সুখে নেই ইমতিয়াজ চৌধুরী

বাড়ি-গাড়ি, কারখানা, হাসপাতালসহ বিভিন্ন ধরনের ব্যবসা মিলিয়ে বেশ ভালোই দিন যেতে থাকে ইমতিয়াজ চৌধুরীর। তিনি তার ভাই-বোনের অর্থ আ’ত্মসাত করে নিজের নামে লিখিয়ে নেন। এর ফলে তিনি শহরের অন্যতম ধনাঢ্য ব্যক্তিতে পরিণত হন।

তবে আর্থিকভাবে সচ্ছল হলেও তাকে প্রায়ই সাংসারিক অশান্তিতে থাকতে হয়। একে একে চারটি বিয়ে করলেও তার কোনো সন্তান নেই। তা নিয়ে ইমতিয়াজ চৌধুরীর চিন্তার অন্ত নেই। একদিকে সন্তানের জন্য হাহাকার, অন্যদিকে মানসিক বিকারগ্রস্ত বোনকে নিয়ে বড় বিপাকে পড়েন তিনি। এমন গল্প নিয়েই নির্মিত হচ্ছে ধারাবাহিক নাটক ‘ফ্যামিলি ডিসটেন্স’।

এবার নাটকে ইমতিয়াজ আলীর চরিত্রে অভিনয় করেছেন বরেণ্য অভিনেতা আবুল হায়াত। এখানে তার চার স্ত্রীর চরিত্রে আছেন দিলারা জামান, ডলি জহুর, ওয়াহিদা মল্লিক জলি ও সাবেরী আলম। আর চিত্রলেখা গুহ অভিনয় করেছেন আবুল হায়াতের প্রেমিকা চরিত্রে৷

ধারাবাহিকটি রচনার পাশাপাশি নির্মাণ করেছেন হাসান জাহাঙ্গীর। এতে অভিনয়ও করেছেন তিনি। হাসান জাহাঙ্গীর বলেন, ‘আমার ভাগ্য আবুল হায়াতের মতো এতো বড় মাপের অভিনেতা এই ধারাবাহিকে কাজ করছেন। তার সঙ্গে যারা কাজ করছেন তারাও নাটক ও সিনেমার আদর্শ মা হিসেবে পরিচিত। আশা নাটকটি সবার কাছেই উপভোগ্য হবে।’

নাটকে দেখা যায়, ইমতিয়াজ চৌধুরী ভাই-বোনের অর্থ আ’ত্মসাত করে নিজের নামে লিখিয়ে নেন। এর ফলে তিনি শহরের অন্যতম ধনাঢ্য ব্যক্তিতে পরিণত হন। বাড়ি-গাড়ি, কারখানা, হাসপাতালসহ বিভিন্ন ধরনের ব্যবসা মিলিয়ে বেশ ভালোই দিন যেতে থাকে তার।

আবুল হায়াত বলেন, ‘ এখন তো আসলে নাটকে নিয়মিত কাজ করা হয় না। আবার নাটকে আমাদের মতো সিনিয়র শিল্পীদের কাজ করার সুযোগই কম থাকে। তারপরও কেউ কেউ ভীষণ আগ্রহ নিয়ে আমাদের নাটকের গল্পে চরিত্র সৃষ্টি করে নাটক নির্মাণ করতে চায়। হাসান জাহাঙ্গীরের মধ্যে সেই আগ্রহটা লক্ষ করেছি এবং এই নাটকের গল্প বলা যায় আমার চরিত্রটিকে কেন্দ্র করেই।

ডলি জহুর বলেন, ‘একমাত্র ছেলে, ছেলের দুই সন্তান অর্থাৎ আমার আদরের দুই নাতি-নাতনিকে রেখে আবারও দেশে ফিরে আসতে কষ্ট হয়েছে। তবে এই নাটকে অনেক সহশিল্পীর সঙ্গে দেখা হয়ে গেল। যা আমার সব মনখারাপ দূর করে দিয়েছে। নাটকটি দর্শকের ভালো লাগবে বলেই আমার বিশ্বাস।’

Advertisement