Saturday, December 10, 2022
Homeসব খবরবিনোদনআমি কখনই রং বদলাইনি : বুবলী

আমি কখনই রং বদলাইনি : বুবলী

গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল ৮ মাস আগেই বিচ্ছেদ হয়েছে শাকিব খান ও বুবলী দম্পতির। গণমাধ্যমে আসা বিচ্ছেদের খবর উড়িয়ে দিয়ে বুবলী বলেছিলেন, খবরটি ভু’য়া, শাকিব খানের সঙ্গে তার সম্পর্ক আগের মতোই আছে। কিন্তু বিয়ে ও সন্তানের খবর গো’পন করার বিষয়ে গণমাধ্যমে শাকিব বলেন, ‘আমি আমার পার্সোনাল লাইফকে পাবলিকের সামনে আনতে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করি না। আমার ইচ্ছা ছিল সময়মতো সুন্দর আয়োজনের মাধ্যমে ঘটা করে বিষয়টি সবাইকে জানিয়ে সবার সঙ্গে একসঙ্গে আনন্দ করব। কিন্তু অপু বা বুবলী কেউই আমাকে সেই সুযোগ দেয়নি। আমার অপছন্দের এমন কাজ করে সবার কাছে আমাকে ছোট করার পরও কি তাদের সঙ্গে সম্পর্ক রাখা যায়?’ শুধু তাই নয়, অপু বুবলী তার শত্রুদের সঙ্গে হাত মিলিয়েছে বলেও অভিযোগ করেন শাকিব খান।

গণমাধ্যমে বুবলী বলেন, ‘আমি ব্যক্তিজীবন নিয়ে খুব একটা কথা বলি না, অনেক টেলিভিশন চ্যানেলে গিয়ে সবকিছু তুলে ধরি না। তাই অনেক কিছু নিয়েই গত সাত বছরে আমি বহু মানুষের ভুল বোঝার কারণ হয়েছি। শুধু নিজের ব্যক্তিজীবন আড়ালে রাখার জন্য আর অন্য কাউকে যেন অসম্মান করে কথা বলতে না হয় সে জন্য আমি চুপ থেকেছি। আর এটাকেই অনেকে তাদের হাতিয়ার বানিয়ে কাজে লাগিয়েছে। কারণ সবকিছু তুলে ধরলে অনেক ইস্যুতেই অনেকে অসম্মানিত হতো, আমি এটা কখনই চাইনি। আর এটাকে ব্যবহার করেই আমাকে ছোট করার চেষ্টা করা হচ্ছে। আমি এখনো বলব আমি আমার জায়গা থেকে কখনই বিচ্ছেদের জন্য বিয়ে করিনি, সন্তান নিইনি। অবশ্যই সংসার করার জন্য, সুন্দর একটা পরিবারের জন্য আমি অনেক কিছু মেনে নিয়ে এখনো সুখে থাকার চেষ্টা করছি। কারণ বিচ্ছেদ কখনই ভালো কিছু নিয়ে আসে না।’

শাকিব খান জানিয়েছিলেন তিনি মানুষ চিনতে ভুল করেছেন। বুবলী সেই ভুল মানুষদের একজন কিনা? এমন প্রশ্নের জবাবে বুবলী বলেন, ‘দেখুন, মানুষের জীবনটা খুব ব্যতিক্রম। কখন কি হয় কেউ জানে না। সময় সবকিছু পরিষ্কার করে দেয়, কে ভুল কে সঠিক তাও সময় বলে দেয়। যে সময়টা কাউকে সবচেয়ে সঠিক মনে হয়, ঠিক অন্য আরেকটা সময় গিয়ে তাকে সবচেয়ে ভুল মনে হয়। এর জন্য সময় এবং পরিস্থিতি কিছুটা দায়ী। তাই কে কখন কী ভাবছে এটা সম্পূর্র্ণ যার যার ব্যক্তিগত মতামত।’

শাকিব খানের শ’ত্রুদের সঙ্গে হাত মিলিয়েছে এমন অভিযো’গ খণ্ডন করে বুবলী বলেন, ‘এ বিষয়টি খুবই দুঃখজনক। কারণ আমি কখনই শাকিব খানকে ছোট করে বা তাকে অপমান করে, তার প্রতি অভিযোগ এনে অথবা তার অসম্মান হয় এমন কোনো কথা বলিনি। অথবা এমন কোনো কাজ কখনো করিনি। হঠাৎ তাকে নিয়ে কটূক্তি করে কথা বলা, অপমান করা, আবার হঠাৎ করেই তার প্রশংসা করা, মাথায় তুলে ফেলা, আবার মাথা থেকে ফেলে দিয়ে ছোট করে কথা বলা- এভাবে আমি কখনই রং বদলাইনি। আমি চেয়েছিলাম আমাদের ছেলের বিষয়টা সুন্দর ভাবে সামনে আসুক, যার জন্য ছেলের আড়াই বছর পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হলো। কিন্তু কি কারণে হচ্ছিল না আমি জানিনা… এমনকি আমি যখন বেবী বাম্পের ছবি দিয়েছিলাম তখনও কি আমি কোনো অভিযোগ করেছিলাম তাকে নিয়ে? করিনি… অনেক কিছু ওভারলুক করেছি। বরং নিজে যত কষ্টই পেয়েছি না কেন, যে কোনো সময় আমি তার পাশে থাকার চেষ্টা করেছি। এমনকি বেবি বাম্পের ছবি দিয়েও কি আমি কোনো অভিযোগ করেছিলাম তার প্রতি? অনেক কিছু ওভারলুক করে আমি সবসময় চাই সে ভালো থাকুক।’

নানা বিতর্কের বিষয়ে বুবলী বলেন, ‘এসব বিতর্ক আমার কানেও আসে। এসব বিষয়ে জিজ্ঞাসা করলে যখন বলেছে সত্য নয়, তখন তাই বিশ্বাস করেছি। কারণ তার কথা আমার কাছে গুরুত্বপূর্ণ এবং আমি তাকে বিশ্বাস করি। স্ত্রী হিসেবে, শেহজাদের মা হিসেবে এবং একজন সহকর্মী হিসেবে আমি সবসময় তার পাশে আছি। দিন শেষে আমি চাই সে ভালো কাজের সঙ্গে থাকুক, ভালো ভালো চিন্তা করুক।’

Advertisement