Wednesday, September 28, 2022
Homeসব খবরজেলার খবরআগামী ৭ দিন সতর্কে থাকার আহ্বান সিলেটবাসীকে

আগামী ৭ দিন সতর্কে থাকার আহ্বান সিলেটবাসীকে

শনিবার (২৯ মে) চার বার ভূকম্পনের পর রবিবার (৩০ মে) ভোরে আবারও ভূমিকম্পে কেঁপে ওঠেছে সিলেট। শনিবার (২৯ মে) ও রোববার (৩০ মে) এ দুই দিনে সিলেটে মোট ছয়বার ভূমিকম্প হয়েছে। অনেকেই আবার এর পরিমাণ বলছেন ৯ বার। যদিও সিলেট আবহাওয়া অফিস থেকে রেকর্ড করা হয়েছে পাঁচটি ভূমিকম্প। এর মধ্যে সর্বশেষ রোববার (৩০ মে) ভোর ৪টা ৩৫ মিনিটে এ ভূমিকম্প অনুভূত হয়।

সিলেটে পরপর ভূমিকম্পের কারণে জনমনে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে। তবে নগরবাসীকে আতঙ্কিত না হয়ে আগামী সাত দিন সতর্ক থাকার আহ্বান জানানো হচ্ছে। এমনকি আগামী তিন থেকে চারদিন সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে বড় ধরনের ভূমিকম্পের শঙ্কা কেটে যেতে পারে। সবশেষ রবিবার ভোরের ভূমিকম্পটির রিখটার স্কেলে মাত্রা ছিল ২ দশমিক ৮। উৎপত্তিস্থল ছিল ঢাকা থেকে ২০৫ কিলোমিটার উত্তর-পূর্বে। অর্থাৎ আজকের ভূমিকম্পটিরও উৎপত্তিস্থল ছিল সিলেটের সীমান্তবর্তী এলাকা।

এর আগে শনিবার (২৯ মে) পর পর পাঁচবার মৃদু ভূ-কম্পন অনুভূত হয়। সর্বশেষ শনিবার (২৯ মে) দুপুর ১টা ৫৮ মিনিটে পঞ্চম বার ভূমিকম্প অনুভূত হয়। এর আগে সকাল ১০টা ৩৭ মিনিটে প্রথম, ১০টা ৫১ মিনিটে দ্বিতীয়, বেলা ১১টা ২৯ মিনিটে তৃতীয় এবং ১১টা ৪০ মিনিটে চতুর্থ বার ভূমিকম্প অনুভূত হয়। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ছোট ছোট ভূমিকম্প হওয়া মানে বড় ধরনের ভূমিকম্পের আশঙ্কা। এতে আতঙ্কিত না হয়ে সকলকে সচেতন ও সাবধান থাকতে হবে। বিশেষ করে যারা বড় বড় দালানকোঠায় থাকেন তাদেরকে বেশি সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে।

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. জহির বিন আলম বলেন, পর পর এতবার ভূমিকম্প সিলেট অঞ্চলের পাশেই ডাউকি ফল্ট অঞ্চলের জন্য খুবই ঝুঁকিপূর্ণ। এত কম সময়ের মধ্যে কয়েক দফা ভূ-কম্পন হওয়ায়য় আগামী সাতদিন নগরবাসীকে সচেতন থাকতে হবে।

তিনি আরও বলেন, হাইরাইজড বিল্ডিংয়ে যারা বসবাস করেন তাদেরকে এখন থেকেই সাবধান থাকতে হবে। ছোট ছোট ভূমিকম্প হওয়া মানে এটি আসাম, নেপাল বা মিয়ানমারে বড় ধরনের ভূমিকম্পের আশঙ্কা। এমনকি সিলেটেও এ বড় ভূমিকম্পটি হতে পারে। এখন ভূ-গর্ভের প্লেটগুলোতে কি চলছে সেটি বোঝা যাচ্ছে না, তবে কোনো একটা ঘটনা ঘটছে সেখানে। তিন থেকে চারদিন যদি ঠিকঠাক অতিবাহিত হয় তাহলে বড় ধরনের ভূমিকম্পের শঙ্কা কেটে যাবে।

সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, সিলেট নগরে পরপর ভূমিকম্প হয়েছে। মানুষকে আতঙ্কিত না হয়ে কীভাবে ভূমিকম্পের ক্ষয়ক্ষতি মোকাবিলায় কাজ করা যায় সেটি নিয়ে ভাবতে হবে। ভূমিকম্প পরবর্তী ক্ষয়ক্ষতি মোকাবিলায় যারা প্রশিক্ষণ নিয়েছেন তাদেরকে কীভাবে কাজে লাগানো যায় সেটি নিয়ে আমরা ভাবছি। আতঙ্কিত না হয়ে আগামী সাতদিন সকলকে সতর্ক থাকতে হবে।

Advertisement