Thursday, October 6, 2022
Homeসব খবরজাতীয়অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড় হয়ে আঘাত হানতে পারে ‘ইয়াস’

অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড় হয়ে আঘাত হানতে পারে ‘ইয়াস’

আরো শক্তি সঞ্চয় করে প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হয়েছে ‘ইয়াস’। এটি আরো ঘনীভূত হয়ে বুধবার অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড় আকারে ভারতীয় উপকূলে হানতে পারে।

মূল আঘাত ভারতীয় উপকূলে হলেও ইয়াসের ২০-৩০ শতাংশের অবস্থান হবে বাংলাদেশই। পূর্ণিমা তিথি, জোয়ার আর ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টির কারণে দেশের উপকূলীয় ১৪ উপজেলায় ক্ষয়ক্ষতির আশংকা করছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

আম্পান আঘাত হানার এক বছরের মাথায় দেশের উপকূলে আবারও ঘূর্ণিঝড় আতঙ্ক। শক্তি সঞ্চয় করে ক্রমেই উপকূলের দিকে এগুচ্ছে চলতি মৌসুমের প্রথম ঘূর্ণিঝড় ‘ইয়াস’।

যেটি উপকূলে আঘাত হানার সময় ঘন্টায় ১২০ থেকে ১৪০ কিলোমিটার গতি নিয়ে অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নেবার পূর্বাভাস রয়েছে।

আবহাওয়া অধিদপ্তর বলছে বুধবার সকাল থেকে দুপুরের মধ্যে উড়িষ্যা এবং পশ্চিমবঙ্গ উপকূলে আঘাত হানবে ইয়াস। প্রভাব থাকবে বাংলাদেশের খুলনা, সাতক্ষীরা, পিরোজপুর, নোয়াখালীর ১৪টি উপজেলা, দ্বীপ ও চরাঞ্চলে। ঝড়ো হাওয়া আর ভারী বর্ষণে প্লাবিত হবে সেসব এলাকা।

আবহাওয়াবিদ ড. আবুল কালাম মল্লিক জানান, মূলত তিনটি কারণে বাংলাদেশের উপকূলে ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা করা হচ্ছে। পূর্ণিমার কারণে নদ-নদীর পানি বেড়ে যাওয়া, জোয়ারের সময় ঘূর্ণিঝড়ের আঘাত হানা আর ভারি বৃষ্টিপাত।

সাধারণত ঘূর্ণিঝড় স্থলে উঠার পর ৬-১২ ঘন্টার মধ্যে শক্তি হারিয়ে নিম্নচাপে পরিণত হয়। যদিও ব্যাতিক্রম ছিলো আম্পান। এর স্থায়ীত্বের কারণে ক্ষতিও হয়েছে বেশি। তাই ইয়াসের ক্ষয়ক্ষতিও নির্ভার করবে এর স্থায়ীত্বের ওপর।

Advertisement